Meta Ray-Ban Smart Glass:মার্ক জুকারবার্গ এর সংস্থা বাজারে আনল এক অভিনব চশমা, এই চশমার কাজ ও দাম শুনলে অবাক হবেন আপনিও

Meta Ray-Ban Smart Glass
Image by vecstock on Freepik

Meta Ray-Ban Smart Glassঃমার্ক জুকারবার্গ এর সংস্থা এবার বাজারে আনল নতুন এক ধরনের চশমা। এই চশমার সাহায্যে আপনি যাই দেখবেন তারই লাইভ স্ট্রিমিং করতে পারবেন, এবং একেবারে রিয়েল টাইম ভিত্তিতে। Meta এবং Ray-Ban এই দুই সংস্থা মিলে চশমাটি তৈরি করেছে।এর সব থেকে আকর্ষণীয় বৈশিষ্ট্য হলো ফাস্ট পারসন পারফেক্টিভ লাইভ স্ট্রিমিং।যদিও এই লাইভ স্ট্রিমিং শুধুমাত্র ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে করা যাবে।

Meta Ray-Ban Smart Glass-Meta এবং Ray-Ban এই দুটি সংস্থা জুটি বেঁধে এই স্মার্ট চশমাটি লঞ্চ করেছে। এই চশমার প্রধান বৈশিষ্ট্য হলো এর ব্যবহার করে আপনি ফেসবুক এবং instagram এ ভিডিও লাইভ স্ট্রিমিং করতে পারবেন। এই চশমার ফ্রেমে দেওয়া হয়েছে ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার সেন্সর এবং এলইডি ইউনিট।

উল্লেখ্য গত ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে Meta তার প্রথম স্মার্ট চশমা লঞ্চ করেছিল। সেই স্মার্ট চশমাটির নাম ছিল Ray-Ban Stories. নতুন স্মার্ট চশমাটি তারই পরবর্তী প্রজন্মের। যদিও Ray-Ban Meta Smart Glasses  কোন ডিসপ্লে ইউনিট ফিচার করেনি।

Meta Ray-Ban Smart Glass-দাম ও অন্যান্য তথ্য

Meta Ray-Ban Smart Glass-স্ট্যান্ডার্ড লেন্স দিয়ে এই চশমাটির দাম ২৯৯ মার্কিন ডলার ভারতীয় মুদ্রায় যেটি প্রায় পঁচিশ হাজার টাকা। অন্যদিকে পোলারাইজড ও ট্রানজিশন লেন্স দিয়ে চশমাটির দাম হবে ৩২৯ মার্কিন ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ২৭ হাজার ৫০০ টাকা এবং ৩৭৯ মার্কিন ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩২ হাজার টাকা। মোট ১০৫ টি ভিন্ন ভিন্ন কাস্টমস ফ্রেম ও লেন্স ডিজাইনের কম্বিনেশনে এই স্মার্ট গ্লাসটি বর্তমানে পাওয়া যাবে।

Meta Ray-Ban Smart Glass-আপাতত বিশ্বের ১৫টি দেশে এই চশমাটি অর্ডার করা যাবে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, এবং ইউরোপিয়ান মার্কেটে ১৭ই অক্টোবর থেকে এই স্মার্ট চশমাটি কিনতে পারবেন। তবে ভারতে এই স্মার্ট চশমা কবে পাওয়া যাবে সেই বিষয়ে Meta সংস্থার তরফ থেকে এখনো পর্যন্ত কিছু জানা যায়নি।

Meta Ray-Ban Smart Glass-প্যাসিফিকেশন এবং ফিচার

Meta Ray-Ban Smart Glass-চশমাটিতে ১২ মেগাপিক্সেল সেন্সর এবং এলইডি লাইট দেওয়া হয়েছে।দুটি সার্কুলার কাটআউটের মাঝে রেকর্ডিং ইন্ডিকেটরটি বসানো হয়েছে চশমাটিতে। এই চশমা ব্যবহার করে ৩০২৪ X ৪০৩২ পিক্সেলের দুর্দান্ত এইচডি কোয়ালিটি ছবি এবং 1080 পিক্সেলের ভিডিও ক্যাপচার করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা।Meta View App এর সাহায্যে খুব তাড়াতাড়ি মিডিয়া ফাইল গুলি শেয়ার করতে পারবেন।

এই চশমার সবথেকে আকর্ষণীয় বৈশিষ্ট্য হলো তার ফার্স্ট পারসন পার্সপেক্টিভ লাইভ স্ট্রিমিং। এটির সাহায্যে ব্যবহারকারীরা নিজের চোখে যাই দেখবেন তারই লাইভ স্ট্রিমিং করতে পারবেন এবং এটি হবে একেবারে রিয়েল টাইম ভিত্তিতে। যদিও এই লাইভ স্ট্রিমিংটি শুধুমাত্র ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামেই করা যাবে। তাছাড়াও এই চশমা ব্যবহারকারীরা “Hey Meta” Prompt দিয়ে হ্যান্ডস ফ্রি ফাংশনও সক্রিয় করতে পারবেন। নতুন এই চশমাটির কোন ডিসপ্লে নেই।

সংস্থা তরফ থেকে দাবী করা হয়েছে আগের চশমাটির তুলনায় এই নতুন চশমার ডুয়েল ওপেন ইয়ার ফিচারস  অডিও লিকেজ আরো কম করতে পারবে। এই জন্যই নতুন চশমাটি আগের থেকে আরো ৫০ শতাংশ বেশি সাউন্ড দিতে পারবে এবং এই সাউন্ড হবে আগের তুলনায় আরো অনেক পরিষ্কার। পারফমেন্স আরো উন্নত করার জন্য এই চশমায় কোয়ালকমের ম্যাপ ড্রাগন এ আর ওয়ান জেনারেশন ওয়ান প্ল্যাটফর্ম প্রসেসর দেওয়া হয়েছে। এই প্রসেসর পেয়ার করা হয়েছে ৩২ জিবি ইনবিল্ড স্টোরেজ এর সঙ্গে। আগের তুলনায় এই চশমার ডিজাইন আরো পাতলা করা হয়েছে।

একবার চার্জ দিলেই এই চশমা চার ঘন্টা ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে পারবে। তবে চার্জিং কেসে থাকা অবস্থায় চশমাটি 32 ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাকআপ দিতে পারবে। সম্পূর্ণ চার্জ হতে চশমাটি সময় নেয় প্রায় ৭৫ মিনিট। সুরক্ষার জন্য এই চশমা আইপি এক্স ফোর রেটিং প্রাপ্ত।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top